ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজার, ঋণের খবরে মিউচুয়াল ফান্ডের উল্লম্ফন

ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজার, ঋণের খবরে মিউচুয়াল ফান্ডের উল্লম্ফন

নিউজ ডেস্ক:
পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সব মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটে বিনিয়োগকারীরা মার্জিন ঋণ পাবেন, নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) থেকে এমন তথ্য জানানোর পর মঙ্গলবার লেনদেনের শুরুতেই সবকটি মিউচুয়াল ফান্ডের দাম বেড়েছে।

সবকটি মিউচুয়াল ফান্ডের দাম বাড়ায় প্রথম আধাঘণ্টার লেনদেনে ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে শেয়ারবাজার। প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচক বাড়ার পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম।

সম্প্রতি তালিকাভুক্ত বেশিরভাগ মিউচুয়াল ফান্ডের দামে বড় উত্থান হয়। এর প্রেক্ষিতে মার্জিন ঋণ নিয়ে পুরাতন কিছু ইস্যু নিয়ে বাজারে নানা গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। ফলে মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কেনার ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীরা মার্জিন ঋণ পাবেন কিনা তা নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়। এতে আবার মিউচুয়াল ফান্ডগুলোর দরপতন হয়।

তবে মঙ্গলবার লেনদেন শুরু হওয়ার আগেই সংবাদ আসে তালিকাভুক্ত সব মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কেনার ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীরা মার্জিন ঋণ পাবেন।

বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) ও মুখপাত্র মোহাম্মদ রেজাউল করিম সই করা এ-সংক্রান্ত স্পষ্টীকরণ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালের ২৬ অক্টোবরের আগে মিউচুয়াল ফান্ডে মার্জিন ঋণ চালু ছিল। তবে ২৬ অক্টোবর এক নির্দেশনার মাধ্যমে বিএসইসি তা বন্ধ করে দেয়। ২০১০ সালের ৩০ ডিসেম্বর আরেক নির্দেশনার মাধ্যমে মিউচুয়াল ফান্ডে মার্জিন ঋণের সুবিধা বহাল করা হয়। এর ফলে সব মিউচুয়াল ফান্ডের মার্জিন ঋণ চালু হয় এবং বহাল আছে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা থেকে এমন নির্দেশনা আসায় লেনদেনের শুরুতেই ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত ৩৭টি মিউচুয়াল ফান্ডেরই দাম বেড়ে যায়। সেই সঙ্গে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রায় সবকটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ে। এতে পাঁচ মিনিটে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক সাত পয়েন্ট পড়ে যায়।

লেনদেনের সময় গড়ানোর সঙ্গে বাড়তে থাকে সূচকের উত্থান প্রবণতা। ফলে প্রথম ৪৫ মিনিটের লেনদেনেই ডিএসইর প্রধান সূচক ২১ পয়েন্ট বেড়ে গেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক আট পয়েন্ট এবং ডিএসই শরিয়াহ্ পাঁচ পয়েন্ট বেড়েছে।

এ সময় পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ৩৭টি মিউচুয়াল ফান্ডসহ ১৮৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৩০টির। আর ৭৮টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ১২৪ কোটি ২২ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৪৭ পয়েন্ট বেড়েছে। লেনদেন হয়েছে দুই কোটি ৩৫ লাখ টাকা। লেনদেনের অংশ নেয়া ৮১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৫৫টির, কমেছে ১০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৬টির।

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!