ট্রাম্প–সমর্থকের সশস্ত্র মহড়ার শঙ্কা, বাইডেনের শপথে অভিনব নিরাপত্তা

ট্রাম্প–সমর্থকের সশস্ত্র মহড়ার শঙ্কা, বাইডেনের শপথে অভিনব নিরাপত্তা

নিউজ ডেস্ক:
যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেককে কেন্দ্র করে দেশটির ৫০ অঙ্গরাজ্যে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসি এখন সেনা টহলের নগরীতে পরিণত হয়েছে। ২১ হাজারের বেশি ন্যাশনাল গার্ড আর আটটি অঙ্গরাজ্য থেকে আসা পুলিশের কড়া নজরদারি চলছে ওয়াশিংটনজুড়ে।

৩৬ বছরের অভ্যাস অনুযায়ী জো বাইডেন চেয়েছিলেন সিনেটর হিসেবে তাঁর ওয়াশিংটন ডিসিতে যাতায়াতের ঐতিহ্য ধরে রাখতে। মনে করেছিলেন ২০ জানুয়ারি উইমলিংটন শহর থেকে ট্রেনে করেই যাবেন ওয়াশিংটন ডিসিতে। নিরাপত্তার লোকজন বাধা দেওয়ায়, তা আর হচ্ছে না।

রোদমাখা দুপুরে বাইবেল হাতে নিয়ে মাত্র ৩৫ শব্দের শপথ বাক্যের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রর ইতিহাসে সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন জো বাইডেন। তাঁর বয়স হয়েছে ৭৮ বছর।

বিবিসির খবরে জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই) বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকেরা সশস্ত্র মহড়া দিতে পারে বলে সতর্ক করেছে।
নিরাপত্তা বিশ্লেষকেরা বলছেন, নির্বাচনের জালিয়াতি ও কারচুপি নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভুয়া দাবির পক্ষে যেসব রাজ্যে ট্রাম্প–সমর্থকেরা নির্বাচন–পরবর্তী সময়ে সভা–সমাবেশ করেছে; সেসব এলাকায় পরিকল্পিত সহিংসতা হতে পারে।

ওয়াশিংটন ডিসির পুলিশ স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার জানিয়েছে, ভার্জিনিয়ার এক ব্যক্তিকে তারা বিপুল গোলাবারুদসহ গ্রেপ্তার করেছে। ভার্জিনিয়ার আইনপ্রণেতা ডন বয়নার বলেছেন, বিপদের সম্ভাবনাকে গুরুত্ব না দেওয়ার কারণ নেই। তিনি সবাইকে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে আহ্বান জানিয়েছেন।

ওয়াশিংটন ডিসির বেশির ভাগ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ৭ ফুট উঁচু বেষ্টনী দিয়ে রাখা হয়েছে।
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আর ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে হামলার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ৪৬তম মার্কিন প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানে মার্কিনদের সরাসরি যোগদানে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে।

জো বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে সমর্থকদের ঘরে বসে ভার্চ্যুয়ালি যোগ দেওয়ার জন্য টিকিট দেওয়া হচ্ছে। আইনপ্রণেতারা শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নিজ নিজ এলাকার ২০০ জন সমর্থকদের ব্যক্তিগত আমন্ত্রণ জানাতে পারেন। এবার আইনপ্রণেতারা নিজেরাই দুজনের জন্য আমন্ত্রণপত্র পাচ্ছেন।

মেট্রো ওয়াশিংটনের দুই বিমানবন্দরেই কড়া নিরাপত্তা জারি করা হয়েছে। প্রশিক্ষিত কুকুর নিয়ে নিরাপত্তাকর্মীরা তল্লাশি চালাচ্ছে। হোটেলগুলো নিরাপত্তার জন্য বুকিং বাতিল করে দিচ্ছে। আগামী সপ্তাহের জন্য ওয়াশিংটন মেট্রো এলাকায় কোনো আবাসিক বুকিং পাওয়া যাচ্ছে না। ওয়াশিংটন ডিসিমুখী রাস্তাগুলোতে নজরদারি চলছে। বাস, ট্রেনেও তল্লাশি চলছে।

ওয়াশিংটন ডিসির বাইরেও বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ম্যারিল্যান্ড, নিউ মেক্সিকো ও ইউটা রাজ্য গভর্নর এর মধ্যেই জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। ক্যালিফোর্নিয়া, পেনসিলভানিয়া, মিশিগান, ভার্জিনিয়া, ওয়াশিংটন ও উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যে ন্যাশনাল গার্ড নামানো হয়েছে।

সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার অভিষেক অনুষ্ঠানে তৎকালীন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শপথ নিচ্ছেন। পাশে তাঁর স্ত্রী জিল ওয়াচেস।

“সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার অভিষেক অনুষ্ঠানে তৎকালীন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শপথ নিচ্ছেন। পাশে তাঁর স্ত্রী জিল ওয়াচেস।

৬ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসির সহিংসতা নিয়ে এখন নানামুখী তদন্ত শুরু হয়েছে। প্রায় ২০০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দায়ের করা হয়েছে। এনবিসি নিউজের খবরে জানা যায়, সহিংসতার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে থেকে কোনো কলকাঠি নাড়া হয়েছে কি না, তা নিয়ে এফবিআই তদন্ত চালাচ্ছে।

জানা গেছে, ফ্রান্সের এক কম্পিউটার প্রোগ্রামার ঘটনার ঠিক আগে আগেই পাঁচ লাখ ডলারের বিটকয়েন যুক্তরাষ্ট্রের রক্ষণশীলদের কাছে ভার্চ্যুয়ালি দিয়েছে। পাঁচ লাখ ডলারের বিটকয়েন দেওয়ার পর এই প্রোগ্রামার আত্মহত্যা করেছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে।

জো বাইডেনের জীবনের বেশির ভাগ সময় কেটেছে ওয়াশিংটনে। কংগ্রেসে তিনি নিজের এলাকার লোকজনের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সংকটময় রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে বিভক্ত জাতিকে ঐক্যের অমিয় বাণী শোনানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন জো বাইডেন। তাঁর এই আহ্বানের সময় উপস্থিত থাকবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স এবং সাবেক প্রেসিডেন্টদের মধ্যে বারাক ওবামা, জর্জ বুশ এবং বিল ক্লিনটন।

জো বাইডেনের ঐক্যের আহ্বান কতটা কার্যকর হবে, তা আগামী দিনগুলোই বলে দেবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক ইতিহাসে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রথমবারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে লোকসমাগম হয়েছিল ১০ লাখের বেশি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, তাঁর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে অনেক বেশি লোকজন হয়েছিল। ‘ফেক মিডিয়া’ তাঁর প্রতি বৈরী থাকার কারণে ছবিও দেখায়নি ঠিকমতো। এবার সব বিধিনিষেধ মেনে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে ২০ হাজারের বেশি উপস্থিতির অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথগ্রহণের দিন ওয়াশিংটন ডিসিতে বৃষ্টি নেমেছিল। যদিও ট্রাম্প বলেছিলেন, কোনো বৃষ্টি হয়নি। মার্কিন মিডিয়াগুলো বলেছিল, এই মিথ্যা দিয়েই ট্রাম্প তাঁর ক্ষমতাসীন সময়ের যাত্রা শুরু করেছিলেন।

২০ জানুয়ারি ওয়াশিংটন ডিসির আকাশ মেঘমুক্ত থাকবে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানাচ্ছে, দিনের বেশির ভাগ সময় রোদ থাকবে।

মার্চ মাস থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ২০ জানুয়ারি নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ অনুষ্ঠানের আগেই চার লাখ মানুষের মৃত্যুর পূর্বাভাস দেওয়া হচ্ছে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের জন্য সর্বত্র সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে আহ্বান জানানো হয়েছে।

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!