পরিবর্তন আনা হল ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স-এ

পরিবর্তন আনা হল ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স-এ

নিজস্ব প্রতিবেদক: শুধু রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স (রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদাক্রম) প্রয়োগ হবে। এজন্য ‘ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স, ১৯৮৬ (২০০৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত পরিমার্জিত)’-এ পরিবর্তন আনা হয়েছে।

ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স হলো একটি প্রোটোকল তালিকা বা রাষ্ট্রের নির্বাহী, আইন ও বিচার বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তাদের পদগুলোর ক্রমবিন্যাস। এতে ২৫টি ধাপ রয়েছে, ধাপগুলোতে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের অবস্থান নির্ধারণ করে দেয়া আছে।

২০ জুলাই, সোমবার এই পরিবর্তন এনে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে আদেশ জারি করা হয়। রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদাক্রমের নোটের ১ নম্বরটি পরিবর্তন করে সেখানে নতুন নোট প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। আগে ১ নম্বর নোটে ছিল- এই পদমর্যাদাক্রম রাষ্ট্রীয় ও অনুষ্ঠানাদির, পাশাপাশি সরকারের অন্যান্য সব ক্ষেত্রেও প্রতিপালিত হবে।

বাংলাদেশে প্রথম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময় ১৯৭৪ সালের ১১ জানুয়ারি ওয়ারেন্ট অব প্রিসিডেন্স জারি করা হয়েছিল। পরে কয়েক দফা এটি পরিবর্তন হয়। তবে রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদাক্রম ‘সরকারের অন্যান্য সব ক্ষেত্রেও প্রতিপালিত হবে’ বিষয়টি এরশাদ সরকারের আমলে যুক্ত করা হয়েছিল। সেখানে ‘এই রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদাক্রম রাষ্ট্রীয় ও অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রয়োগ হবে’ প্রতিস্থাপিত হবে। এ পরিবর্তনের কারণে রাষ্ট্রীয় পদমর্যাদাক্রম অন্য কোনো ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা যাবে না।

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...
  • 4
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!