বার্সার বিদায়, সেমিফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখ

বার্সার বিদায়, সেমিফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখ

স্পোর্টস ডেস্ক :  উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে পর্তুগালের লিসবনে মুখোমুখি বার্সেলোনা এবং বায়ার্ন মিউনিখ। যেখানে ম্যাচের প্রথমার্ধেই লিওনেল মেসিদের জালে গোলের হালি উৎসব পূর্ণ করেন থমাস মুলার-রবার্ট লেভান্ডোফস্কিরা। আর দ্বিতীয়ার্ধেও সেই ধারা অব্যাহত রেখে কাতালানদের ওপর চলে বাভারিয়ানদের টর্নেডো। শেষ বাঁশিতে ম্যাচের সমাপ্তি হলো বায়ার্নের ৮-২ গোলের জয়ে। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে নকআউট পর্বে এটিই ৮ গোলের প্রথম ইতিহাস।

বায়ার্নের দুর্দান্ত গতি আর হাই প্রেসিংয়ের সামনে তাল মেলানো তো দূরের ব্যাপার কোনো কৌশলই খুঁজে পাননি মেসিরা। বায়ার্নের আক্রমণের স্রোতে ভেসে গেছে বার্সা। ম্যাচের ৪ মিনিটে থমাস মুলারের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল বায়ার্ন। এরপর অবশ্য বার্সার আশার পালে হাওয়া লেগেছিল মিনিটে তিনেক বাদে ডেভিড আলাবার আত্মঘাতী গোলের পর বার্সা ম্যাচে ফিরেছিল কিছুটা। এরপর লুইস সুয়ারেজও একটি সুযোগ পেয়েছিলেন গোলের সামনে। বার্সার দৌড় থেমেছে সেখানেই।

এরপর যেন মাঠে কেবল একটাই দল আর টার স্টগান। ম্যাচের ২১ মিনিটে ডি-বক্সের ভেতরে বাম পাশ থেকে বাম পায়ের আড়াআড়ি শটে দ্বিতীয় গোল করেন ইভান পেরিসিচ। ২৭ মিনিটে সার্জ গ্ন্যাব্রি ব্যবধান করলেন ৩-১। আর ৩১ মিনিটে স্পট কিকের জায়গায় কোনা থেকে পা ছুঁয়ে মুলারও নাম লেখান স্কোরশিটে।

ম্যাচ জুড়ে কেবল আধিপত্য ছিল বাভারিয়ানদের। তবে ম্যাচের শেষ মিনিট পর্যন্তও গোলের জন্য মরিয়া বায়ার্ন। ম্যাচের ৮৯ মিনিটে কোতিনহো নিজের দ্বিতীয় আর বায়ার্নের ৮ম গোল করলে ইতিহাসে লেখা হয় নতুন এক রেকর্ড। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসের নকআউট পর্বে প্রথম কোনো দল ৮-২ গোলের ব্যবধানে জিতল।

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!