বেতন চাওয়ায় মাদ্রাসা শিক্ষককে কুপিয়েছে ছাত্রের পিতা

বেতন চাওয়ায় মাদ্রাসা শিক্ষককে কুপিয়েছে ছাত্রের পিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক: বকেয়া বেতন চাওয়ায় শিক্ষককে ধারালো ছুরি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে ছাত্রের বাবা, ঘটনাটি ঘটে ফেনী শহরে। আহত শিক্ষক হলেন পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডে অবস্থিত দারুল ঈমান ইসলামী মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও স্থানীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মামুনুর রশীদ।

গত রোববার বিকেলে মাদ্রাসার সামনে এই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলাকারী ফেনী শহরের পূর্ব উকিল পাড়ার মুন্সি পুকুরের পূর্ব পাশের আবুল বশরের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম। তাকে আসামি করে মাদ্রাসা শিক্ষক বাদি হয়ে ফেনী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আহত মাদ্রাসা শিক্ষক জানান, জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে ওয়াছি আলম শান্ত ওই মাদ্রাসায় প্লে থেকে ৬ষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করে। চলতি বছর ফেনী ফালাহিয়া মাদ্রাসায় ৭ম শ্রেণিতে ভর্তি হয়। বিদায়ী ছাত্রের দু’মাসের প্রায় ৮ হাজার টাকা ‘আবাসিক’ বকেয়া বেতন চান শিক্ষক মামুনুর রশিদ। বকেয়া বেতন চাওয়ার পর থেকে সে প্রিন্সিপালের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে ও ফেসবুকে প্রিন্সিপালের পোস্টে অরুচিকর কমেন্ট করে। প্রিন্সিপাল কমেন্ট করে প্রতি উত্তর দিলে সে আরো বেশি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। তার জের ধরে মাদরাসা প্রাঙ্গণে তার উপর প্রকাশ্যে হামলা করে জাহাঙ্গীর।

অভিযুক্ত হামলারকারীর ছবি ও সিসিটিভি ফুটেজ ইতোমধ্যে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। ভুক্তভোগী হাফেজ মাওলানা মামুনুর রশীদ সদর উপজেলার গোবিন্দপুরের বাসিন্দা। ফেনী মডেল থানার ওসি অপারেশন্স মোহাম্মদ আলী জানান, অভিযুক্তকে ধরতে অভিযান চলছে।

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...
  • 5
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!