সনদের দাবিতে শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের বিক্ষোভ

সনদের দাবিতে শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সনদের দাবিতে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিল থেকে প্রিলিমিনারি (এমসিকিউ) পরীক্ষায় ২০১৭ এবং ২০২০ সালে উত্তীর্ণ শিক্ষানবিশরা। এই দুই পরীক্ষার লিখিত ও ভাইভা গ্রহণ না করে শুধু প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ভিত্তিতে আইনজীবী হিসেবে গেজেট প্রকাশের দাবি তুলেছেন তারা।

রোববার (১৯ জুলাই) রাজধানীর বাংলামোটরে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করেন শিক্ষানবিশ আইনজীবীরা। এ সময় কাফনের কাপড় পরে অনেক শিক্ষানবিশ আইনজীবী সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করবেন তারা।

গত ৮ জুলাই থেকে দাবি আদায়ে আমরণ অনশনে যান তারা। আন্দোলনকারীরা বলছেন, দীর্ঘ পাঁচ বছরে একটি মাত্র এনরোলমেন্ট পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ায় এবং বর্তমান করোনা ভয়াবহতার কারণে শিক্ষানবিশ তারা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বর্তমানে ১২ হাজার ৮৪৮ জন লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন। এছাড়া ৫০ হাজারেরও বেশি শিক্ষানবিশ আইনজীবী পরবর্তী প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার জন্য অপেক্ষায় আছেন।

আন্দোলনকারী কয়েকজন শিক্ষানবিশ বলেন, আমরা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের আইনজীবী তালিকাভুক্তকরণ এনরোলমেন্ট প্রক্রিয়ার প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় ২০১৭ সালের ২১ জুলাই এবং ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে উত্তীর্ণ হই। দীর্ঘ প্রায় তিন বছর বার কাউন্সিল কর্তৃক এনরোলমেন্ট পরীক্ষা সম্পন্ন না হওয়ায় আমরা মানবেতর জীবনযাপন করছি। উচ্চ আদালতের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও ২০১৮ ও ২০১৯ সালে কোনো পরীক্ষা হয়নি। তবে চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি আইনজীবী তালিকাভুক্তকরণ পরীক্ষার প্রিলিমিনারি সম্পন্ন হওয়ার পর বর্তমান করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারির কারণে লিখিত পরীক্ষা অনিশ্চিত হয়ে যায়। এমন অবস্থায় শিক্ষানবিশ আইনজীবীদের বিষয় মানবিকভাবে বিবেচনা করে লিখিত পরীক্ষা মওকুফ করে অথবা লিখিত ও ভাইভা উভয় পরীক্ষা মওকুফ করে ২০১৭ ও ২০২০ সালে এমসিকিউ উত্তীর্ণদের গেজেট প্রকাশ করে সনদের প্রদানের জন্য দাবি জানাচ্ছি।

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...
  • 17
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!