স্কুল ছাত্রীকে প্রতারণার ফাঁদ থেকে বাঁচালো ডিএমডিবিএফ সদস্যরা

স্কুল ছাত্রীকে প্রতারণার ফাঁদ থেকে বাঁচালো ডিএমডিবিএফ সদস্যরা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

মোবাইলে প্রতারক চক্রের প্রেমের ফাঁদে পড়ে শারমিন আক্তার জুই(১৪) নামের এক স্কুলছাত্রী গাজীপুর থেকে জয়পুরহাট পর্যন্ত চলে যায়। কিন্তু ধূমপান মাদক ও দুর্নীতি বিরোধী ফাউন্ডেশন (ডিএমডিবিএফ) এর সদস্যদের প্রচেষ্টায় বড় ধরনের সর্বনাশ থেকে বেঁচে যায় জুই নামের স্কুল পড়ুয়া এই ছাত্রী।

গতকাল (বুধবার) ১৮-০১-২০২৩ তারিখ বিকালে ধূমপান মাদক ও দুর্নীতি বিরোধী ফাউন্ডেশন (ডিএমডিবিএফ) এর বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার আহবায়ক মোঃ সাব্বির হোসেন প্রাং সংগঠনের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে বাসে করে জয়পুরহাট যাচ্ছিলেন। বাসের ভেতরে মেয়েটি বারবার মোবাইলে কথা অনুসরন করে পথ চলছিল এবং অসংলগ্ন কথা বার্তা বলছিল। সেই সময় ডিএমডিবিএফ এর সাব্বির সহ বাসের যাত্রীরা বিষয়টি আঁচ করতে পেরে জুই নামের ওই স্কুলছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে বলে তাকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে কথা বলে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে, বিয়ের করার কথা বলে ঢাকা থেকে জয়পুর জেলার এই জায়গা পর্যন্ত নিয়ে এসেছে। যদিও গাজীপুর থেকে একজন সন্দেহভাজন প্রতারকচক্রের সদস্য মেয়েটিকে সাথে থেকে অনুসরণ করে যাচ্ছিল যিনি গাজীপুর হতে জুই যেখান হতে বাসে ওঠে সন্দেহভাজন লোকটিও একই জায়গা হতে বাসে ওঠে এবং মেয়েটির সাথেই বাস থেকে নেমে পরে গাঢাকা দেয়। এমনকি তার কাছে আর কোন টাকা পয়সাও ছিলো না। এরপর যে ছেলের সাথে মোবাইলেকথা বলে ওই মেয়ে পথ অনুসরণ করে যাচ্ছে ওই ছেলের সাথে যোগাযোগ করলে সেই প্রতারক ছেলেটা জানায় মেয়েটিকে সে ভালোবাসে না বিয়ে করতে রাজি না, তবে মেয়েটি যদি টাকা-পয়সা এবং গহনা নিয়ে আসতো তাহলে মেয়েটিকে বিয়ে করতো। পরে ওই ছেলের আরো তথ্য নিয়ে জানা যায় ছেলেটা একটা প্রতারক চক্রের সদস্য, যারা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মেয়েদের সাথে সম্পর্ক তৈরি করে তাদের সর্বনাশ করে পরে দেশের বাইরে পাচার করে দেয় বা মেরে ফেলে অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিক্রি করে দেয়।

ডিএমডিবিএফ শিবগঞ্জ উপজেলার আহবায়ক মোঃ সাব্বির হোসেন প্রাং এর নেতৃত্বে তৎক্ষনাৎ মেয়েটি কে উদ্ধার করে নিরাপদে রাখা হয় সাথে সাথে ওই মেয়ের নিকট হতে তার পিতার মোবাইল নাম্বার নিয়ে তার সাথে যোগাযোগ করে সমস্ত বিষয় গুলো জানানো হয় এবং মেয়েটিকে জয়পুরহাট জেলা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করতে চাইলে মেয়েটির বাবার অনুরোধে পুলিশের নিকট হস্তান্তর হতে বিরত থেকে মেয়েটিকে ফাউন্ডেশনের সদস্যদের হেফাজতে বগুড়া জেলায় নিয়ে আসা হয় এবং স্থানীয়ভাবে ইউনিয়ন পরিষদের ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের জিম্মায় রাখা হয়। মেয়েটির পিতা শাহানুর প্রামানিক এবং ভাই গাজীপুর থেকে শিবগঞ্জ আসলে তাদের হাতে স্থানীয় লোকজন নিশ্চিত হয়ে আজ বৃহস্পতিবার ১৯-০১-২০২৩ ইং সকালে তাদের মেয়ে কে সুরক্ষিতভাবে তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

ধূমপান মাদক ও দুর্নীতি বিরোধী ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী জনাব আলীউল আজীম রাজু ‘র সার্বিক দিক নির্দেশনায় বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার আহবায়ক মোঃ সাব্বির হোসেন প্রাং এর নেতৃত্বে মেয়েটিকে প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা করে তার পরিবারের কাছে সুরক্ষিত ভাবে হস্তান্তর করেন। এই মহৎ কাজে শিবগঞ্জ উপজেলার আহবায়ক মোঃ সাব্বির হোসেন প্রাং এর সাথে আরো ছিলেন ধূমপান মাদক ও দুর্নীতি বিরোধী ফাউন্ডেশন শিবগঞ্জ উপজেলা সদস্য মুসফিকর রহমান বিপুল ,মোঃ সোহরাহ হোসেন, মহরম মিয়া, রাসেল মীর এবং শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন এর আনসার ও ভিডিপির কমান্ডার ফয়সাল সরকার সহ অন্যান্যরা।

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!