১০ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা মাইক্রোসফটের

১০ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা মাইক্রোসফটের

নিউজ ডেস্কঃ

টুইটার, মেটা, অ্যামাজন, অ্যালফাবেটের পর এবার বড় আকারে কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফট। এতে একসঙ্গে চাকরি হারাবে প্রতিষ্ঠানটির ১০ হাজার কর্মী।

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) এ ঘোষণা দেয় মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষ। আগামী মার্চের মধ্যে বিদায় দেয়া হবে প্রতিষ্ঠানটির প্রায় ৫ শতাংশ কর্মীকে। প্রবৃদ্ধির হার বাড়াতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে।

মাইক্রোসফটের এক অভ্যন্তরীণ এক নোটিসের মাধ্যমে কর্মী ছাঁটাইয়ের এ তথ্য জানা গেছে। ওই নোটিসে প্রধান নির্বাহী সত্য নাদেলা বলেছেন, “কোভিডের সময় গ্রাহকেরা ব্যয়ের পরিমাণ বাড়িয়েছিলেন। তবে এখন মানুষ ‘সতর্কতার নীতি’ অনুসরণ করছে। বিশ্বের অনেক অংশে মন্দা চলছে। অনেক জায়গায় (মন্দা) আসন্ন।

কোভিডকালে প্রযুক্তি ব্যবসা ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ায় অনেক কর্মী নিয়োগ করতে হয়েছিল এ খাতের প্রতিষ্ঠানগুলোকে। ২০২১ সালের জুন থেকে ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত ৪০ হাজার নতুন কর্মী নিয়েছিল মাইক্রোসফট। ফলে প্রতিষ্ঠানটির স্থায়ী কর্মীর সংখ্যা দুই লাখ ২১ হাজারে দাঁড়িয়েছিল। এর মধ্যে ৯৯ হাজার যুক্তরাষ্ট্রের বাইরের।

গত বছর ব্যাবসার সেই গতিতে ভাটা পড়েছে। ফলে শুরু হয় কর্মী ছাঁটাই। সর্বশেষ ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের প্রক্রিয়া এ বছরের তৃতীয় ত্রৈমাসিকে সম্পন্ন হবে।

তবে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তায় বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করে চলেছে প্রতিষ্ঠানটি। চ্যাটজিপিটি’র (জেনারেটিভ প্রি-ট্রেইন্ড ট্রান্সফরমার) নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওপেনএআই-তে কয়েক বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে মাইক্রোসফট।

অ্যামাজন, ফেসবুক-ইনস্টাগ্রাম-হোয়াটসঅ্যাপের মালিকানা প্রতিষ্ঠান মেটাসহ কয়েকশ প্রতিষ্ঠান গত কয়েক সপ্তাহে কর্মী ছাঁটাইয়ের কথা জানিয়েছে। সম্প্রতি অ্যামাজন জানায়, পরিস্থিতি মোকাবিলায় ১৮ হাজারের বেশি কর্মীকে ছাঁটাই করা হবে। নভেম্বরে মেটা জানায়, তারা তাদের ১৩ শতাংশ অর্থাৎ ১১ হাজারের মতো কর্মীকে ছাঁটাই করবে।

 

পোষ্টটি প্রয়োজনীয় মনে হলে শেয়ার করতে পারেন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!