ঢাকা , শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গাজায় ত্রাণ পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন নিউজ ডেস্ক
  • আপডেটঃ ০২:১৯:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪
  • / ৬৬৫ বার পঠিত

যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বিমান থেকে ত্রাণ সহায়তা ফেলবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

 

শুক্রবার (১ মার্চ) হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। আগামী ১০ বা ১১ মার্চ থেকে এ বছর মধ্যপ্রাচ্যে রমজান শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

 

আসন্ন পবিত্র রমজানে গাজায় যুদ্ধবিরতি হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বাইডেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, হোয়াইট হাউসে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন, মুসলিমদের পবিত্র মাস শুরু হতে চলেছে ১০ বা ১১ মার্চ থেকে, ততক্ষণে আপনি একটি চুক্তি (গাজায় যুদ্ধবিরতি) আশা করছেন কিনা? জবাবে বাইডেন বলেন, আমি তাই আশা করছি। আমরা এখনো এটির জন্য কঠোর পরিশ্রম করছি।’

 

যুদ্ধবিরতি নিয়ে আলোচনার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, রমজানের শুরু থেকে সব সামরিক অভিযান ৪০ দিনের বিরতির বিষয়ে আলোচনা চলছে। পাশাপাশি এসময় গাজায় সাহায্যের প্রবাহও বৃদ্ধি পাবে।

 

তিনি জানান, সাগরপথে গাজায় ত্রাণসহায়তা পৌঁছে দিতে একটি মেরিটাইম করিডর স্থাপনের বিষয়ে ভাবছে তার দেশ।

 

অন্যদিকে হামাস জানিয়েছে, ফিলিস্তিনের গাজায় দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর বোমা হামলায় তাদের হাতে থাকা জিম্মিদের মধ্যে সাতজন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৪ জন ইসরাইলি এবং তিনজন বিদেশি নাগরিক বলে জানা গেছে।

 

শুক্রবার (১ ফেব্রুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে এক পোস্টে হামাসের সামরিক বিভাগ আল কাসেম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু উবাইদা। তবে উপত্যকার কোন এলাকায় এই ৭ জিম্মি নিহত হয়েছেন, তা পরিষ্কার করেননি এই প্রতিরোধ যোদ্ধা।

অর্থআদালতডটকম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া অন্য কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

error: Content is protected !!

গাজায় ত্রাণ পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

আপডেটঃ ০২:১৯:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বিমান থেকে ত্রাণ সহায়তা ফেলবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

 

শুক্রবার (১ মার্চ) হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। আগামী ১০ বা ১১ মার্চ থেকে এ বছর মধ্যপ্রাচ্যে রমজান শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

 

আসন্ন পবিত্র রমজানে গাজায় যুদ্ধবিরতি হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বাইডেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, হোয়াইট হাউসে এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন, মুসলিমদের পবিত্র মাস শুরু হতে চলেছে ১০ বা ১১ মার্চ থেকে, ততক্ষণে আপনি একটি চুক্তি (গাজায় যুদ্ধবিরতি) আশা করছেন কিনা? জবাবে বাইডেন বলেন, আমি তাই আশা করছি। আমরা এখনো এটির জন্য কঠোর পরিশ্রম করছি।’

 

যুদ্ধবিরতি নিয়ে আলোচনার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, রমজানের শুরু থেকে সব সামরিক অভিযান ৪০ দিনের বিরতির বিষয়ে আলোচনা চলছে। পাশাপাশি এসময় গাজায় সাহায্যের প্রবাহও বৃদ্ধি পাবে।

 

তিনি জানান, সাগরপথে গাজায় ত্রাণসহায়তা পৌঁছে দিতে একটি মেরিটাইম করিডর স্থাপনের বিষয়ে ভাবছে তার দেশ।

 

অন্যদিকে হামাস জানিয়েছে, ফিলিস্তিনের গাজায় দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর বোমা হামলায় তাদের হাতে থাকা জিম্মিদের মধ্যে সাতজন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৪ জন ইসরাইলি এবং তিনজন বিদেশি নাগরিক বলে জানা গেছে।

 

শুক্রবার (১ ফেব্রুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে এক পোস্টে হামাসের সামরিক বিভাগ আল কাসেম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু উবাইদা। তবে উপত্যকার কোন এলাকায় এই ৭ জিম্মি নিহত হয়েছেন, তা পরিষ্কার করেননি এই প্রতিরোধ যোদ্ধা।